× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

গোপালগঞ্জ পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন ২০২২

জনপ্রিয়তায় এগিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সমর্থিত প্রার্থী শেখ রকিব

আশিক জামান, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি

০৭ জুন ২০২২, ১৭:৪৪ পিএম । আপডেটঃ ০৭ জুন ২০২২, ১৮:২১ পিএম

বা দিক থেকে শেখ রেহানা, শেখ রকিব হোসেন রকিব এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আগামী ১৫ ই জুন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে  গোপালগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন ২০২২। কোন দলীয় মনোনয়ন না থাকলেও  প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহানা  ব্যক্তিগত সমর্থন দিয়েছেন  তার চাচা মেয়র প্রার্থী শেখ রকিব হোসেন রকিবকে। ভোটারদের জনপ্রিয়তার ও তুঙ্গে রয়েছেন তিনি । তিনি গোপালগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে নারকেল গাছ প্রতীক নিয়ে মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। 

সভা থেকে তোলা ছবি।

প্রধানমন্ত্রীর  সমর্থনের  বিষয় টি গত ৩১মে প্রধানমন্ত্রীর টুঙ্গিপাড়া সফরে জেলা ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলার নেতাকর্মীদের সাথে ঘরোয়া সভায় শেখ রকিবের হোসেন রকিবের পক্ষে উপস্থিত  নেতাকর্মীদের কাজ করার  আহবান জানানো  ও অপর দুই প্রার্থী দের  সংবাদ  সম্মেলনে  শেখ রকিব হোসেন পক্ষে ওপেন সমর্থন জানানো  বিষয় টি নিশ্চিত করে। এছাড়াও মৃনাল কান্তি রায় পপা সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নিজে তাকে ডেকে নিয়ে শেখ রকিব হোসেন রকিবের পক্ষে কাজ করার জন্য অনুরোধ করেছেন। 

এদিকে রকিব হোসেনের বাকি প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়র প্রার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর সমর্থন কে গুজব বলে  উড়িয়ে দিচ্ছেন। গুজবে কান না দেওয়ার জন্য কোন কোন প্রার্থী ভোটারদের উদ্যেশ্যে করছেন সংবাদ সম্মেলন। অন্যদিকে অপর দুই মেয়রপ্রার্থী সংবাদ সম্মেলনে  নির্বাচন প্রত্যাহার করে  ওপেন সমর্থন জানিয়েছেন শেখ রকিব হোসেন রকিব কে। 

ভোটের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই বাড়ছে নির্বাচনী উত্তাপ বাড়ছে। চায়ের স্টল, হোটেল ও বিভিন্ন অলিগলি সহ সব জায়গাতেই চলছে প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনা আর জল্পনা-কল্পনা। দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত গান-ছন্দে প্রার্থীদের নজরকাড়া ভোট প্রার্থনা আর মাইকের আওয়াজে আন্দোলিত এখন শহর। এছাড়া সামাজিক মাধ্যমে চলছে অনেক প্রার্থীর সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারণা বিভিন্ন। গণসংযোগে রাত-দিন ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা, আর যাচ্ছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে।গোপালগঞ্জ  পৌরবাসীর মাঝে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ। নির্বাচন কেন্দ্র করে পৌর এলাকার প্রতিটি অলিগলি, দোকানের সামনে, ফাঁকা জায়গায়, বাড়ির সম্মুখে ছেয়ে গেছে সাদা-কালো পোস্টারে।

সব আলোচনা সমালোচনা পিছনে ফেলে প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার আগে থেকেই  ভোটারদের দুয়ারে ছুটতে দেখা গিয়েছে  এই মেয়র প্রার্থী রকিব হোসেন রকিব  কে ।বেদগ্রাম, হরিদাসপুর, হেমাঙ্গন সহ কয়েকটি এলাকায়  অনুষ্ঠিত হয়েছে  এ নির্বাচনে সবচেয়ে বড় বড় কয়েকটি জনসভা।  এতে আনন্দ-উল্লাস দেখা যায় প্রার্থী ও তাঁর সমর্থকদের মধ্যেও।নারকেল গাছ  প্রতীক পেয়েই সকাল হতে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত পথে ঘাটে চায়ের দোকানে নির্বাচনী এলাকায় প্রচার –প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন শেখ রকিব হোসেন রকিব । মেয়র প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় ও জনপ্রিয়তায় এগিয়ে আছেন তিনি। এলাকাবাসির সাথে কথা বলে জানাজায়, পৌরবাসীর মধ্যে  ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে তার । ছাত্র ও যুব সমাজের মাঝেও তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে অনেক ।  শেখ পরিবারের  এ নেতাকে মেয়র হিসেবে চান দল-বল নির্বিশেষে সকলেই।অনেকেই  বলছেন তিনি একমাত্র পৌরসভা আধুনিকতায় রুপান্তরিত করতে পারবেন।তিনি পৌরসভার প্রতিটি এলাকার মাদক সন্ত্রাস জুয়া বাল্যবিবাহ, বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডে বিরুদ্ধে, আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব দিতে সক্ষম হবেন । পৌরসভার একাধিক ব্যক্তি জানান, তিনি  তরুন-প্রজন্মের জনপ্রিয় নেতা। সব সময় তাকে মাঠে পাওয়া যায়, বিপদে-আপদে, মহামারী করোনা-কালীন সময়ে তার অনেক অবদান রয়েছে।

এদিকে ছোট ছোট হ্যান্ডবিল নিয়ে অপর মেয়র প্রার্থী,  ও সমর্থকরা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। হ্যান্ডবিল বিলির সঙ্গে চালিয়ে যাচ্ছেন উঠান বৈঠকও। সেই সঙ্গে প্রার্থীরা দিচ্ছেন বিভিন্ন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি। সাবেক, বর্তমান ও নতুন প্রার্থীরা সবাই উন্নয়নের অঙ্গীকার করে যাচ্ছেন।  

পরিবর্তনের অঙ্গীকার নিয়ে  উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি   মেয়রপ্রার্থী  কাজী লিয়াকত আলী লেকু  মোবাইল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি একটি আধুনিক মডেল পৌরসভা গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন। 

এদিকে  ক্যারামবোর্ড  প্রতীকের যুবলীগ  নেতা জি এম শাহাবুদ্দিন আজম নির্বাচনী  মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তিনিও পৌর নাগরিকদের সার্বিক উন্নয়নে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

চামচ প্রতীক নিয়ে সাবেক মেয়র  ও জেলা  শ্রমিকলীগ নেতা   রেজাউল হক শিকদার রাজু মেয়রপদে  নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি ও পৌরবাসীকে দেখাচ্ছেন নানান স্বপ্ন। 

এছাড়াও  মুশফিকুর রহমান লিটন (ইস্ত্রি), দিলীপ কুমার সাহা দীপু (কম্পিউটার) এস এম নজরুল ইসলাম নতুন (হেলমেট), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো: দিদারুল ইসলাম (হাত পাখা) ও মো. আবুল ফত্তাহ সজু (রেল ইঞ্জিন) প্রতীক  নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।। 


Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.