× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

শার্শায় এনজিওকর্মীর সাড়ে চার লক্ষ টাকা লুট, নিরাপত্তাহীনতায় পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক

২৩ জুন ২০২২, ১৯:১৩ পিএম । আপডেটঃ ২৩ জুন ২০২২, ১৯:১৪ পিএম

যশোরের শার্শার নাভারনে বাসা বাড়ীতে চুরির ঘটনায় সাড়ে চার লক্ষ টাকার মালামাল খুইয়েও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ওই ভুক্তভোগী পরিবার। 


গত (১৯জুন) শনিবার সকাল এগারোটার দিকে নাভারন বুরুজবাগান এলাকায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশে নজরুল ইসলামের ভাড়াটিয়া জরলিলুর রহমানের (৪০) বাড়িতে এ দূর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী এনজিও কর্মী জলিলুর রহমান অভয়নগর উপজেলার মোয়াল্লেমতলা এলাকার বাবর আলী মুন্সির ছেলে। তিনি চাকুরীসুবাদে নাভারনে বসবাস করেন। ভুক্তভোগী জলিলুর রহমান (চুরির ঘটনার দিন) শনিবার (১৯জুন) বিকালে শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তবে এ ঘটনায় অভিযোগ প্রদানের পাঁচ দিন অতিবাহিত হয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে অথবা খোয়া যাওয়া মালামাল উদ্ধার করতে পারেনি।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, শনিবার জলিলুর রহমান অফিসে চলে যায়, এবং তার স্ত্রী বাচ্চাদের নিয়ে স্কুলে চলে যায়। এমন সময় বেলা এগারোটার দিকে তার ভাড়া বাসার তালা ভেঙে অজ্ঞাত আসামীরা ঘরে প্রবেশ করে নগদ ৫০ হাজার টাকা, তিনটি স্বর্ণের রুলি, তিনটা স্বর্ণের চেইন, ছয়টি স্বর্ণের আংটি, দুটি স্বর্ণের হার, ও দুই জোড়া কানের দুল যাহার আনুমানিক মূল্য সাড়ে চার লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে তার স্ত্রী বাসায় এসে বাসাবাড়ির ভেতর লন্ডভন্ড অবস্থায় পায়। পরে ওদিনই বিকালে তিনি শার্শা থানায় অভিযোগ করেন। 


ভুক্তভোগী জলিলুর রহমান বলেন, আমার বাসাবাড়িতে চুরির ঘটনায় সারে চার লক্ষ টাকার স্বর্ণ গহনা সহ নগদ টাকা খোয়া গিয়েছে। আমি ইতিমধ্যে শার্শা থানায় অভিযোগ দিয়েছি। তবে বুরুজবাগান এলাকায় শৃঙ্খলা পরিস্থিতি একাবেরাই ভালো নয়। আমি বর্তমানে স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে নিরাপত্তারহীনতায় ভুগছী। 

এদিকে বুরুজবাগান এলাকার একটি সুত্র জানায়, অত্র এলাকায় উঠতি বয়সী যুবকদের নেশার আড্ডাখানা তৈরী হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে অত্র এলাকায় সন্ত্রাসীমূলক কর্মকান্ডের ঘটনা ঘটছে। এদিকে একটি বাড়িতে চুরির ঘটনায় গোটা এলাকায় আতঙ্ক  বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান বলেন, এদিন আমি ছিলাম না। এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। তবে অভিযোগ যেহেতু হয়েছে তদন্ত চলছে।

Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.