× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

পাবনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের উপর নৌকা প্রার্থীর কর্মীদের হামলা, আহত ৭

পাবনা প্রতিনিধি

২৭ জুলাই ২০২২, ১৮:৫১ পিএম

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার করমজা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বিএনপি নেতা রইজ উদ্দিন সরদারের সমর্থকদের উপর আ.লীগের নৌকা প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী বাগছীর সমর্থকদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

বুধবার (২৭ জুলাই) দুপুর পৌনে ৩ টার দিকে করমজার পুন্ডুরিয়া দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেছে। 


আহতরা হলেন- চাকলা গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে সোহেল রানা (৩৫), পেচাকোলা গ্রামের আব্দুস শুকুরের ছেলে আব্দুস সালাম (৪০), চাকলা এলাকার আক্কাজ আলী ছেলে আলম হোসেন (৪০), মোজাহার মুসুল্লির ছেলে আব্দুল মতিন (৫৫), হারুনুর রশিদের ছেলে সেলিম হোসেন (৪০), মোকসেদ আলীর ছেলে  জহুরুল ইসলাম (৩২) ও মান্নান ফকিরের ছেলে সোহেল রানা (৩৬)। 


রইজ উদ্দিনের ঘোড়া প্রতীকের নির্বাচনী এজেন্ট আব্দুস সালাম জানান, অনেক ভোটার ইভিএম ভোট দিতে সমস্যা হচ্ছে। এই সুযোগে নৌকা প্রার্থীর এজেন্ট ও তার লোক ভোটারদের প্রভাবিত করে ইভিএমে ভোট নিয়ে নিচ্ছে। এ সময় আমাদের কয়েকজন কর্মী বিষয়টি জানতে পেরে বাধা দিলে নৌকার বেশ কিছু নেতাকর্মী আমাদের লোকজনদের ওপর হামলা চালায়। এতে আমাদের অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন। আহতদের বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 


ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বিএনপি নেতা রইস উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ হচ্ছিল। ইভিএমে ব্যাপক জটিলতা দেখা দেওয়ায় সাধারণ জনগণ ভোট দিতে না পারায় নৌকার লোকজন বয়স্কদের গোপনকক্ষে নিয়ে যেয়ে তাদের পক্ষে ভোট দিচ্ছিলো। এসময় আমার লোকজন বিষয়টি বাধা দিলে সৌকার লোকজন আমার কর্মী সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিশ্চিত পরাজয় জেনে আমার লোকদের উপর হামলা করেছে। এ ঘটনা  তিব্র নিন্দা জানান তিনি।


তবে আ..লীগ মনোনিত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী বাগছী বলেন, খুবই সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ণভাবে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। বিএনপির লোকজন সকাল থেকেই আমার এলাকার কেন্দ্রগুলোতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছিল। এসময় আমার লোকজনের সঙ্গে হাতাহাতি হয়েছে। হামলার কোন ঘটনা ঘটেনি। হামলার নাটক সাজিয়ে হামপাতালে গেছে।


এবিষয়ে সাঁথিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম বলেন, ওইখানে হাতাহাতির একটা ঘটনার কথা শুনেছি। ঘটনার পরপরই মোবাইল টিমসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য পাঠানো হয়েছে। তারা সেখানে কাজ করছে। এখন স্বাভাবিক আছে। 


ঘটনাস্থলে থাকা পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেড়া সার্কেল) কল্লোল কুমার দত্ত  বলেন, এখানে কেন্দ্রের বাইরে অপ্রীতিকর একটা ঘটনা ঘটেছে। ২-৩ জন আহত হয়ে থাকতে পারে। আমরা বিষয়টির খোঁজখবর নিয়ে পরে জানাতে পারব। 


বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মোজাহিদুল ইসলাম বলেন, আহতদের হাসপাতালে যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। কেউ যদি গুরুতর থাকে তাহলে হাসপাতালে ভর্তি করানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। 


সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোজাম্মেল হক বলেন, শান্তিপুর্ণভাবে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। একটি তুচ্ছ ঘটনা ঘটলেও তেমন কোন সমস্যা হয়নি। পরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আশা করি ফলাফল ঘোষণা পর্যন্ত পরিস্থিতি শান্ত থাকবে।

Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com, বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.