× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের স্বাক্ষর সীল জালিয়াতি, গ্রেপ্তার ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

০৬ আগস্ট ২০২২, ১৯:৫০ পিএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আল-আমীনের স্বাক্ষর জালিয়াতির মামলার দুই আসামী সাগর (৩৪) ও জসিম (১৫) কে গ্রেফতার করেছে জেলা অপরাধ তদন্ত শাখা (সিআইডি)’র সদস্যরা। গত বুধবার সন্ধ্যায় ইন্সপেক্টর মো.কুতুবুল আলমের নেতৃত্বে সরাইলের কালীকচ্ছ বাজার থেকে প্রথম গ্রেফতার করেন সাগরকে। পরে গ্রেফতার করা হয় জসিমকে। সরাইল সদরের সোনালী ব্যাংকের নিচের মার্কেটের জিয়াউল হক রানা (২৭) এর কম্পিউটার টাইপিং দোকানে তল্লাশি চালিয়ে জালিয়াতির কাজে ব্যবহৃত গুরূত্বপূর্ণ কাগজপত্র উদ্ধার করেন সিআইডি’র সদস্যরা। অবশ্য এর আগেই দোকান থেকে সটকে পড়েন রানা। 

সিআইডি সূত্র জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া কোর্টের এডভোকেট ইশতিয়াক আহমেদ বাদী হয়ে গত ২৮ মে ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ তারিখে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় উল্লেখ করা হয়, একটি সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আল-আমীনের স্বাক্ষর সীল ও গোল সীল জাল করে চুরি করা মটরবাইকের কাগজপত্র তৈরীর ব্যবসা করে আসছিল। জালিয়াত চক্রের সাথে জড়িত সরাইলের কালীকচ্ছ এলাকার মো. জাহাঙ্গীর মৃধার ছেলে সাগর। সরাইল সদরের নিজ সরাইল গ্রামের মো. নজরুল হকের ছেলে জিয়াউল হক রানা ও তার দোকানে কর্মরত মোশাররফ মিয়ার ছেলে জসিম। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জেলা সিআইডি’র ইন্সপেক্টর মো. কুতুবুল আলম সরাইল থানাকে বিষয়টি পত্রদ্বারা অবগত করে গত বুধবার সন্ধ্যায় কুতুবুল আলমের নেতৃত্বে সিআইডি’র সদস্যরা কালীকচ্ছ বাজারে অভিযান চালায়। অভিযানকালে নিজ দোকান থেকে গ্রেফতার করা হয় সাগরকে। সরাইল সদর থেকে গ্রেফতার করা হয় রানার দোকানের কর্মচারী জসিমকে। সরাইল সোনালী ব্যাংকের নিচে রানার কম্পিউটার টাইপিং এর দোকান ছিল তালাবদ্ধ। এর আগেই সটকে পড়েছিল রানা।

পরে সিআইডি’র সদস্যরা বাজার কমিটির উপস্থিতিতে রানার দোকানের তালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে তল্লাশি চালায়। তল্লাশিকালে ওই দোকান থেকে ২০-২৫টি বিভিন্ন নামের জাতীয় পরিচয়পত্র, সিডি প্লেয়ার ও চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের স্বাক্ষরযুক্ত ২টি ষ্ট্যাম্প উদ্ধার করেন। গ্রেফতারকৃত দুই আসামীকে ইতিমধ্যেই আদালতে প্রেরণের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর মো. কুতুবুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এরা ম্যাজিষ্ট্রেটের স্বাক্ষর জাল করে কাগজপত্র তৈরী করে চোরাই মটরবাইক বিক্রির ব্যবসার সাথে জড়িত। একজন উকিল তাদের বিরূদ্ধে মামলা করেছেন। আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন।



Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.