× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

রাইস মিলের দুর্ঘটনায় নিহত তিন শ্রমিকের পরিবারে শুধুই আহাজারি

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:১০ এএম

হামার স্বামীকে আইনা দেন। আমি তাক ছাড়া তিন বেটিকে (মেয়েকে) নিয়া কীভাবে বাঁচমো। ছোট দুই বেটি (মেয়ে) আব্বা আব্বা করছে, তার আব্বা আর নাই। কান্নাজড়িত কণ্ঠে এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন, কুড়িগ্রাম সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের গারুহাড়া গ্রামের মৃত নুর ইসলামের (৪০) স্ত্রী সালমা বেগম (৩২)। 

তিনি আরও বলেন, মুই (আমি) এখন কিভাবে বাচ্চাদের বাঁচাইম। আল্লাহ মোক (আমাকে) নেও, হামার স্বামীকে আনি (ফিরিয়ে) দেন।

নিহত নুর ইসলামসহ তিন শ্রমিক গত রোববার রাত ১০টার দিকে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে একটি রাইস মিলে ছাদ ভেঙে পড়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে। তারা সবাই সদর উপজেলার যাত্রাপুর ও পাঁচগাছী ইউনিয়নের গারুহাড়া ও ওয়াপদা বাজারের বাসিন্দা।

নিহত নুর ইসলামের চাচা বাছর উদ্দিন ঢাকা পোস্টকে বলেন, নুর ইসলামরা দুই ভাই। দুইজনে দিনমজুরের কাজ করে সংসার চালান। কিছুদিন আগে নুর ইসলাম বাড়ি থেকে কাজের উদ্দেশ্য টাঙ্গাইল গেছে। সে রাইস মিলে কাজ করে তার বৃদ্ধা মা, স্ত্রী ও তিন কন্যা সন্তানকে খাওয়ায়। সেই নুর ইসলাম আজ নাই। মারা গেছে দুর্ঘটনায়। তার ছোট সংসারটার কি হবে এখন? 

এদিকে নিহত নুর ইসলামসহ বাকি আরও দুই শ্রমিকের বাড়িতেও চলছে কান্না আর আহাজারি। নিহত আরেক শ্রমিক আশরাফুল ইসলাম (২৫) এর বাড়িতেও চলছে শোকের মাতম। আশরাফুলের মা বারবার মূর্ছা যাচ্ছে। বাবা শোকে পাথর হয়ে বসে আছেন। বছর খানেক আগে বিয়ে করেছেন আশরাফুল। 

আশরাফুলের বাবা বাচ্চু মিয়া বলেন, আমি কাজ করতে পারি না। ছেলের আয় দিয়েই চলছে আমার কোনো রকম সংসার। সে গত ৪ দিন আগে সংসারের হাল ধরতে টাঙ্গাইলের একটি রাইস মিলে কাজ নেয়। রাতে শুনতে পাই ছেলে আমার মারা গেছে। বাবা থাকতে  ছেলের মৃত্যুর খবর সহ্য করতে পারছি না। 

আরেক শ্রমিক নাইমুল ইসলামের বাড়িতেও চলছে কান্না ও আহাজারি। 

প্রসঙ্গত, টাঙ্গাইলের গোপালপুরে একটি রাইস মিলে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন তারা। গত রোববার রাতে মিলের ছাদ ভেঙে পড়ে ওই তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। 

Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com, বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.