× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

গাইবান্ধায় প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ছেলের হাতে বাবা খুন

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:১৯ পিএম

গাইবান্ধায় জমি নিয়ে বিরোধ ও পূর্বশত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষকে  ফাঁসাতে পিতাকে খুন করেছেন  ছেলে।

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার বৈষ্ণব দাস গ্রামের মো: জাহিদুল ইসলাম অন্যদেরকে সাথে নিয়ে তার পিতা সেকেন্দার আলী বাদশাকে হত্যা করেছেন।
মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গাইবান্ধা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)এর পুলিশ সুপার এ আর এম আলিফ সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান। 

তিনি বলেন , জমি নিয়ে বিরোধের কারণে প্রতিপক্ষ পাঁচ প্রতিবেশির বিরুদ্ধে মামলা করেন জাহিদুল ইসলাম। সে সময় তিনি প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে হত্যার হুমকিরও অভিযোগ করেন। ২০১৮ সালের ৪ মে সকালে বাদী জাহিদুল ইসলামের বাবা মো. সেকেন্দার আলী বাদশা বাড়ির পাশে খুন হন। পরবর্তীতে পিবিআই তদন্ত করে জানতে পারে এ ঘটনার সঙ্গে পাঁচ প্রতিবেশী নয়।  তার নিজের ছেলে জাহিদুল ইসলাম  এবং একই এলাকার মো. জামাত আলী, মো. আব্দুল মোন্নাফ ও  মো. আবুদল আজিজ জড়িত। পিবিআইয়ের জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার মো. জামাত আলী বিষয়টি স্বীকার করেন। চলতি বছরের ৪ সেপ্টেম্বর তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন ।

পুলিশ সুপার আরও  বলেন, ছেলের পরিকল্পনা অনুযায়ী ওই চার আসামী সেকেন্দার আলী বাদশাকে একটি বাঁশঝাড়ে নিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা চালালে তিনি জ্ঞান হারান। তাকে মৃত ভেবে আসামীরা ওখান থেকে চলে গেলে পর দিন কৌতূহলবশত বাঁশঝাড়ে ফিরে গিয়ে সেকেন্দার আলী বাদশাকে মুমূর্ষু অবস্থায় দেখেন। এ সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি তাদের দেখে ফেললে তারা সেকেন্দার আলী বাদশাকে সংকটজনক অবস্থায় নিজ বাড়ীতে নিয়ে যান। কিন্তু সেখানেই তার মৃত্যু হয়। এরপর তার ছেলে জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মামলা করেন। 

সংবাদ সম্মেলন চলাকালে নিহতের ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও আরেক আসামী মো. আব্দুল আজিজকে সাংবাদিকদের সামনে আনা হয়।

Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com, বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.