× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

মাদক বিক্রিতে বাঁধা দিয়ে বিপাকে ছাত্রলীগ নেতা

বরিশাল ব্যুরো

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:৫৭ পিএম । আপডেটঃ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:৫৩ পিএম

কলেজ ক্যাম্পাসে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেওয়ায় এক ছাত্রলীগ নেতাকে মারধর ও আরেক ছাত্রলীগ নেতাকে লাঞ্চিতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি জেলার উজিরপুর উপজেলার সরকারি শেরে বাংলা ডিগ্রি কলেজের।

শুক্রবার সকালে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি শাকিল মাহমুদ আউয়াল অভিযোগ করে বলেন, পূর্ব মুন্ডপাশা এলাকার আব্দুল হাইয়ের ছেলে চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা আরিফ মীর ও তার সহযোগীরা দীর্ঘদিন থেকে কলেজ ক্যাম্পাসে গাঁজা-ইয়াবা বিক্রি ও সেবন করে আসছিলো। কলেজ ক্যাম্পাসে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেওয়ায় সম্প্রতি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জুলমত সরদারকে মারধর ও তাকে (আউয়াল) লাঞ্চিত করে মাদক ব্যবসায়ী আরিফ ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনার জেরধরে গত ১৮ সেপ্টেম্বর বিকেলে আরিফের সহযোগী মাদক বিক্রেতা মারজু ও শান্তকে মাদক সেবনরত অবস্থায় শিকারপুর লঞ্চঘাট এলাকায় লাঞ্চিত করে কলেজ শাখা ছাত্রলীগ কর্মীরা। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওইদিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে মাদক ব্যবসায়ী আরিফ মীর, মারজু বিশ্বাস, জাহিদ মীর, শান্ত মৃধা ও মোঃ হোসেনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতা আউয়ালের বড় ভাইয়ের শিকারপুর বন্দরের বধূয়া ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোরে হামলা চালিয়ে লুটপাট ও ভাংচুর করে মাদক ব্যবসায়ীরা। 

শিকারপুর বন্দর ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও বধুয়া ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোরের মালিক করিম খান অভিযোগ করে বলেন, কলেজ ক্যাম্পাসে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেয় আমার ছোট ভাই ছাত্রলীগ নেতা আউয়াল। এ ঘটনার জেরধরে এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা সংগঠিত হয়ে আমার দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে মালামাল, নগদ টাকা লুট করে নেয়। এমনকি ভাংচুর করা হয় মোটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও রহস্যজনক কারনে এখন পর্যন্ত মামলা রুজু না করা হয়নি। অপরদিকে মাদক ব্যবসায়ীরা থানায় অভিযোগ দিলে তাদের অভিযোগটি আমলে নিয়ে মামলা রুজু করা হয়েছে। সেই মামলায় আমাকে ও আমার ভাই ছাত্রলীগ নেতা আউয়ালকে আসামী করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, আমার দোকানে হামলার ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ সংরক্ষিত রয়েছে। তিনি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত অপরাধীদের বিচারের দাবী জানান। অভিযোগের বিষয়ে জানতে আরিফ মীরার একাধিকবার ফোন করা হলেও তার ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেয়া যায়নি।  

এ বিষয়ে উজিরপুর মডেল থানার ওসি মোঃ কামরুল হাসান জানান, স্থানীয়ভাবে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দোকানে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। এ ঘটনায় মামলা রুজুর প্রস্তুতি চলছে। ওসি আরও বলেন, ভুক্তভোগীদের অভিযোগে ত্রুটি থাকায় তা সংশোধন করে দিতে তাদের বিলম্ব হওয়ায় এখনও কোনো আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। তবে মামলা রুজুর পরেই আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য ২০১৯ সালে আরিফ মীরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে গাঁজা গাছসহ আরিফকে আটক করেছিলেন র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। ওই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করা হয়। যে মামলা এখনো চলমান রয়েছে। 




Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com, বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.