× প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিশ্ব রাজনীতি খেলা বিনোদন বাণিজ্য লাইফ স্টাইল ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

বরিশালে উচ্ছেদের বছর না পেরোতেই আবারও অবৈধ স্থাপনা

বরিশাল ব্যুরো

২৭ জানুয়ারি ২০২৪, ১৭:৩৫ পিএম

বরিশালে উচ্ছেদের বছর পেরোতে না পেরোতেই আবারও রাস্তার পাশের জমিতে গড়ে উঠেছে অবৈধ স্থাপনা। এতে যানজটের ভোগান্তিও বেড়েছে শহরে। প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় এসব জমি ফের দখলদারদের হাতে চলে গেছে বলে অভিযোগ করছেন স্থানীয়রা।

যানজটের ভোগান্তি কমাতে গত বছরের অক্টোবরে বরিশাল নগরীর সাগরদী, রুপাতলী ও দপদপিয়া এলাকায় রাস্তার পাশের সাত শর মতো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রশাসন। উদ্ধার হয় প্রায় ৩০ একর জমি। তবে বছর না গড়াতেই বেশির ভাগ জমিতে আবার গড়ে উঠেছে অবৈধ স্থাপনা। সঙ্গে ফিরেছে যানজটের ভোগান্তিও। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় উচ্ছেদের কিছুদিনের মধ্যেই সড়কের জায়গা দখল করে গড়ে তোলা হয় অবৈধ স্থাপনা।

স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ট্রাফিক বিভাগের মূল কাজ হলো জানজট নিরসন। অথচ রাস্তার পাশের অবৈধ স্থাপনার জন্য যানবাহন চলাচল মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। বাস ড্রাইভার যারা আছে তারা সময় মেনে চলতে পারছে না। গাড়ি নিয়ে সামনে এগোনোর কোনো উপায় থাকে না। উচ্ছেদের পর পরই আবার দখল হয়ে যায় রাস্তার পাশের জমি।

এ প্রসঙ্গে বরিশাল সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওসার হোসেন শিপন বলেন, ‘আমরা বাস মালিক সমিতি থেকে বার বার উচ্ছেদের ব্যবস্থা করি। কিন্তু স্থানীয় কাউন্সিলর ও প্রভাবশালীদের লোকজন উচ্ছেদ হওয়া জমি আবার দখল করে নেয়।

এরা এসব দোকান থেকে নিয়মিত চাঁদা আদায় করে। আড় বিপদে পড়তে হয় আমাদের ও যাত্রীদের। যাত্রীদের সেবা দেওয়ার কোনো সুযোগ থাকে না।’ উচ্ছেদ পরবর্তী জমি রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব সড়ক বিভাগের, বলছে জেলা প্রশাসন। আর সড়ক বিভাগ বলছে, সবার সহযোগিতা ছাড়া অবৈধ দখলদারদের ঠেকিয়ে রাখা সম্ভব নয়।

বরিশাল জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম জানান, সরকারি যে কোনো প্রতিষ্ঠান বা বিভাগের জমি অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে উদ্ধারে জেলা প্রশাসন সব সহযোগিতা করবে। তবে যাদের জমি উদ্ধার করে দেওয়া হয় তাদেরকেও পরবর্তী করণীয়গুলো করতে হবে যাতে পুনরায় জমি অবৈধ দখলে না যায়।

এ বিষয়ে বরিশাল সড়ক বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. মাসুদ খান বলেন, ‘বরিশালের ১৬ শ কিলোমিটার সড়ক একা আমাদের পক্ষে তদারকি সম্ভব নয়। এর জন্য সবার সহায়তা দরকার। তবে উচ্ছেদের পর আবার দখলের নেপথ্যে সড়ক বিভাগের কেউ জড়িত আছে প্রমাণ হলে কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Sangbad Sarabela

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । [email protected], বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2024 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.