× প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিশ্ব রাজনীতি খেলা বিনোদন বাণিজ্য লাইফ স্টাইল ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

রামগঞ্জে স্ত্রীর পরকীয়ার বলি স্বামী, স্ত্রীসহ আটক ৩

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি

০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:৩৫ পিএম

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে স্ত্রীর পরকীয়ার বলি হলেন স্বামী আবুল বাশার (৫২)। বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্ত্রী কোহিনুর বেগমের বিরুদ্ধে। 

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের ফতেহপুর গ্রামের দিঘীরপাড় এলাকায় ওয়ারিশ পাটোয়ারীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আবুল বাশার ওই বাড়ির মৃত হাবিব উল্যার ছেলে ও প্রবাসী ছিলেন। 

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায় কোহিনুরসহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত অন্যরা হলেন নিহতের মেয়ে রাফা আক্তার ও পুত্রবধূ দিপা আক্তার।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আবুল বাশার দীর্ঘদিন প্রবাসী ছিলেন। প্রায় ৬ বছর আগে তিনি বাড়িতে আসেন। বিদেশ থেকে আসার পর তিনি জানতে পারেন, প্রতিবেশী বিল্লাল হোসেন দিলুর সঙ্গে কোহিনুরের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তখন থেকেই স্ত্রীর সঙ্গে বাশারের কলহ শুরু হয়। প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়া হতো। ঘটনার সময় বাশারকে তার স্ত্রী পাশের বাড়ি থেকে ধান আনার জন্য বলে। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে কোহিনুর একটি বাঁশের লাঠি নিয়ে তার মাথায় আঘাত করেন। এতে বাশার অচেতন হয়ে পড়েন। তাৎক্ষণিক বাড়ির মানুষজন জড়ো হয়ে পড়েন। হাসপাতাল নেওয়ার আগেই বাশার মারা যান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

আবুল বাশারের বড় বোন আমেনা বেগম বলেন, গত তিন দিন ধরে ভাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছি। আমার ভাই ও ভাবির মধ্যে প্রতিদিন ঝগড়া, মারামারি হয়। প্রতিদিনের মতো আজকেও সকালে ভাইয়ের সাথে তার অনেক ঝামেলা হয়েছিল। এক পর্যায়ে তাকে লাঠিসোঁটা ও ধাক্কা দিয়ে নিক্ষেপ করা হয়। পরে আমার ভাই গুরুতর আহত হয়। এছাড়াও আমার ভাইয়ের স্ত্রী কোহিনুর বেগম, ছেলের স্ত্রী ও মেয়ে রাফা হাসপাতালে নিতে না দেওয়ায় বাড়িতেই মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

স্কুল শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

এছাড়াও সামিয়া আক্তার শান্তা (১৭) নামের দশম শ্রেণির এক স্কুল শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে রামগঞ্জ থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার ভাদুর ইউনিয়নের শমেষপুর গ্রামের মিজি বাড়িতে।

খবর পেয়ে রামগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। মৃত স্কুলছাত্রী সামিয়া আক্তার শান্তা দিনমজুর শামছুদ্দিন মিজীর মেয়ে। সে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের আথাকরা উচ্চ বিদ্যালয় ১০ম শ্রেণিতে পড়ে। ঘটনার পর স্থানীয়রা শান্তাকে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মেয়েটির শরীরে বিষক্রিয়ায় অস্তিত্ব রয়েছে বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

এই ব্যাপারে রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান জানান, প্রাথমিকভাবে জানতে পারি বিষক্রিয়ায় মেয়েটি মারা যায়। আমরা লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর মর্গে পাঠানো হবে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Sangbad Sarabela

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । [email protected], বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2024 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.