× প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিশ্ব রাজনীতি খেলা বিনোদন বাণিজ্য লাইফ স্টাইল ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

বিধবাকে ধর্ষণ ও ভিডিও করে অর্থ আদায়, গ্রেফতার ১

ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪:০৪ পিএম

প্রতীকী ছবি

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে এক বিধবা নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। অভিযুক্তরা নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে ষড়যন্ত্র করে ভাসুরপুত্রের সাথে অনৈতিক সর্ম্পকের অভিযোগ তুলে ভিডিও ধারণ করে। ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। 

এ ঘটনায় সোমবার  (১২ ফেব্রুয়ারি) ভুক্তভোগী নারী থানায় মামলা করলে রাতেই প্রধান অভিযুক্ত মাইনুদ্দিন মিজিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

 মঙ্গলবার (১৩ফেব্রুয়ারি) সকালে অভিযুক্তকে চাঁদপুর আদালতে এবং নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালে পাঠায়। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) রাতে প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে বিধবা নারী ঘরের বাইরে গেলে অভিযুক্তরা এ সুযোগে তার ঘরে প্রবেশ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। পরে নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে কূটকৌশলের আশ্রয় নেয় তারা। এরই অংশ হিসেবে ভুক্তভোগীর ভাসুরের ছেলেকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে ঘরের বাইরে নিয়ে মারধর করে এবং চাচির সাথে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে এমন স্বীকারোক্তি নেয়ার চেষ্টা করে তা ভিডিও ধারণ করে। এক পর্যায়ে ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে অভিযুক্তরা দুই লক্ষ টাকা অর্থ দাবি করে। ভুক্তভোগীর ভাসুরের ছেলে একটি স্কুলের শিক্ষকতা পেশায় থাকার কারণে সম্মানের ভয়ে অভিযুক্তদের ৫০ হাজার টাকা দিতে বাধ্য হয়। এতেও অভিযুক্তরা ক্ষ্যান্ত না হয়ে পুনরায় মোটা অংকের অর্থ দাবি ও ওই নারীকে আবারো ধর্ষণের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে অভিযুক্তদের আতঙ্কে দুই সন্তানকে নিয়ে ভুক্তভোগী ওই নারী স্বামীর বাড়ি ছেড়ে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নেন এবং সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকালে থানার লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগটি মামলা হিসেবে নিয়ে পুলিশ অভিযুক্তদের মধ্যে মাইনুদ্দিন মিজিকে সোমবার রাতে গ্রেফতার করে এবং আজ মঙ্গলবার সকালে আদালতে পাঠায়। 

ভুক্তভোগীর ভাসুরের ছেলে জানান, আমার অসুস্থ মাকে দেখতে ঘটনার দিন সন্ধ্যায় আমি বাড়িতে আসি। আমার মায়ের সাথে ঘুমিয়ে ছিলাম। গভীর রাতে মাইনুদ্দিন মিজি আমাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে, আমাকে চড়-থাপ্পর দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে আমার চাচির সাথে দাঁড় করায়। একপর্যায়ে আমাকে তারা আমার চাচির সাথে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে বলে স্বীকার করতে বাধ্য করে ভিডিও করে। এরপরেই অভিযুক্তরা আমার কাছ থেকে দুই লক্ষ টাকা দাবি করে না হলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ভয়ভীতি দেখায়। আমি পেশার কারণে ও আত্মসম্মানের ভয়ে বাড়ির অন্যান্য চাচিদের সাথে যোগাযোগ করে তাদের ৫০ হাজার টাকা দেই। কিন্তু তারা আবারও আমার কাছ থেকে আরো টাকা দাবি করে এবং আমার চাচিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে যেতে বাধ্য করে। 

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি সাইদুল ইসলাম বলেন, ঘটনার শিকার ওই নারীর অভিযোগটি মামলা হিসেবে নিয়ে সোমবার রাতেই অভিযুক্ত একজনকে গ্রেফতার করে আজ সকালে চাঁদপুর আদালতে এবং ভিকটিমকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। 

Sangbad Sarabela

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । [email protected], বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2024 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.