× প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিশ্ব রাজনীতি খেলা বিনোদন বাণিজ্য লাইফ স্টাইল ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

যশোরে একসঙ্গে ১০০ তরুণ-তরুণীর বিয়ে

জেমস আব্দুর রহিম রানা, যশোর

১৯ মে ২০২৪, ১২:৫০ পিএম

হাতে মেহেদী। লাল টুকটুক শাড়ি পরা। মাথায় বড় ঘোমটা। বিয়ের সাজে সারিবদ্ধ ৫০ কনে। খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলার অসহায়-অস্বচ্ছল ১০০ পরিবারের এসব মেয়েকে বিয়ে দেয়া হলো কোনো যৌতুক ছাড়া। 

এই গণবিয়ে আয়োজন করা হয়েছে যশোরের ঝিকরগাছায় গাজীর দরগাহ মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে।

যশোরে বিনা যৌতুকে বিয়ে করতে আসা ৫০ জোড়া তরুণ-তরুণীর কাছে এমন আয়োজন ছিল স্বপ্নের মতো, তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ করল শারজাহ চ্যারিটি ইন্টারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন।

শনিবার (১৮ মে) ঝিকরগাছা উপজেলার গাজীর দরগাহ কুয়েত ইসলামিক ইয়াতীম কমপ্লেক্সে এ আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন এতিম ও অসচ্ছল পরিবারের ১০০ জন তরুণ-তরুণী। শুধু তাই নয়, বিয়েতে প্রত্যেক দম্পতি পেয়েছেন ঘর সাজানোর উপহার।

এদিন সকাল থেকেই একে একে পাগড়ি আর লাল শাড়ি পরে অর্ধশত বর-কনে আসেন কুয়েত ইসলামিক ইয়াতীম কমপ্লেক্সে। সেখানে আগে নির্ধারিত পাত্র-পাত্রীর বিয়ে পড়ান কাজী। ভোজ শেষে নব দম্পতিদের উপহার দেওয়া হয় ভ্যানসহ নানা সামগ্রী। পরে ইসলামিক শরিয়া অনুযায়ী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর নতুন বউ নিয়ে হাসিমুখে ফিরে যান নিজ নিজ গন্তব্যে। খাওয়া-দাওয়া থেকে শুরু করে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে কোনো কমতি ছিল না। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বর ও কনেদের পরিবারের সদস্যরা।

বিয়ে করতে আসা এক পাত্র বলেন, ‘সমাজের সবাই এমন যৌতুক বিহীন বিয়ে করুক। এই যৌতুক নামক যে ব্যধি তা চিরতরে সমাজে থেকে দেশ থেকে বিতাড়িত হয়ে যাক।’ 

অপর আরেকজন বলেন, ‘উপহার পেয়ে আমি দারুণ খুশি, এটা নিয়ে আমি ভালো কিছু করতে চাই। সংসারের জন্য ভ্যান গাড়িটি ভালো কাজে লাগবে।’

বিনা খরচে ছেলে-মেয়েকে বিয়ে দিতে পেরে খুশি পরিবারের সদস্যরা। ছেলেকে বিয়ে দিতে আসা এক অভিভাবক জানান, তিনি ছোট একটা ব্যবসা করেন। ওই ব্যবসা দিয়ে ছেলে বিয়ে দেওয়া সম্ভব হতো না। উনাদের সার্পোট পেয়ে আমি খুশি। অপরজন জানান, আমরা গরীব মানুষ। ছেলেদের আমরা সাহায্য পেয়েছি এ জন্য খুব খুশি।

আয়োজক কমিটির সদস্য ঝিকরগাছা গাজীর দরগাহ মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক এম মিকাইল হোসেন বলেন, যৌতুকবিহীন বিবাহ প্রথা চালু করার উদ্দেশ্যে এমন আয়োজন করা হয়েছে। যেন যৌতুকের বলি হতে না হয় কোনো নারীকে। পাশাপাশি গরিব অসহায় পরিবারগুলো ধুমধাম করে তাদের সন্তানদের বিয়ে দিতে পারে না, আমরা তা নিশ্চিত করে সব আয়োজন করেছি।

বিয়ের পাশাপাশি নগদ টাকা, সেলাই মেশিন, ভ্যানগাড়ি, রান্নার চুলাসহ সংসার সাজানোর সরঞ্জামও দিয়েছে সংস্থাটি।

প্রতিবছর এমন গণবিয়ের আয়োজন করা হয় বলেও জানান আয়োজকরা।

Sangbad Sarabela

সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । সম্পাদক: 01703-137775 । [email protected] । বিজ্ঞাপন ও বার্তা সম্পাদক: 01894944220

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2024 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.