× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

সারাদেশে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

২৬ মার্চ ২০২২, ১৯:১২ পিএম । আপডেটঃ ২৬ মার্চ ২০২২, ১৯:১৩ পিএম

বাংলাদেশ স্বাধীনের ৫১ বছর পূর্ণ হলো। ৫২তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে দেশের সর্বস্তরের মানুষ জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন।

শনিবার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দেশের সকল জেলা শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

চাঁদপুর:

চাঁদপুরে ৩১ বার তোপধ্বনীর মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুভ সূচনা হয়। সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে উত্তোলন করা হয় জাতীয় পতাকা।

শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে অঙ্গীকার পাদদেশে জেলা প্রশাসনের পক্ষে ডিসি অঞ্জনা খান মজলিশের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। সকাল ৮টায় চাঁদপুর স্টেডিয়ামে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর শান্তির প্রতিক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে পববর্তী কর্মসূচি শুরু হয়।

জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার অংশগ্রহণে কুচকাওয়াজ এবং মনমুগ্ধকর শারিরীক কসরত প্রদর্শিত হয়। এসব পর্বে অংশগ্রহনকারী মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ অতিথিবৃন্দ।

পুরস্কার বিতরণ পূর্বে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ জাতির পিতাসহ সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বক্তব্যে বলেন, ১৯৭১ সালে বাংলার নিপীড়িত জনগণ সশস্ত্রযুদ্ধে লীপ্ত হয়ে ছিনিয়ে আনেন স্বাধীনতার নতুন সূর্য। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পৃথিবীর বুকে রচিত হয় লাল-সবুজের পতাকা এবং প্রতিষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ নামের নতুন ভুখন্ডের।

ডিসি বলেন, সেদিন জাতির পিতার ডাকে সাড়া দিয়ে জীবন বাজি রেখে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল অকুতোভয় বীর বাঙালি। এ যুদ্ধছিল অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যয়ের যুদ্ধ, শোষণের বিরুদ্ধে শোষিতের যুদ্ধ, পরাধীনতার বিরুদ্ধে স্বাধীনতার যুদ্ধ এবং বঞ্ছনার বিরুদ্ধে অধিকার আদায়ের যুদ্ধ। সে যুদ্ধেই আমরা বিজয় ছিনিয়ে এনেছি। অনেক ত্যাগ ও রক্তের বিনিময়ে অর্জিত এই স্বাধীনতা আমাদেরকে উত্তেলিত করে মাথা উচুঁ করে বিশ্বের বুকে বাঁচতে শেখায়।

নীলফামারী:

নীলফামারীর ডিমলায় বর্নাঢ্য আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত হয়েছে। সকালে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১বার তোপ ধ্বনির মধ্যদিয়ে দিবসটির শুভ সূচনা করা হয়। সকাল সাড়ে ৬টায় একযোগে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ও মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, উপজেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন ও সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আফতাব উদ্দিন সরকার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন,উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক সরকার মিন্টু, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম, সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

ডিমলা থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী দ্বারা পরিচালিত কুচকাওয়াজ উপভোগ করেন অতিথিগণ।কুচকাওয়াজ ও বিভিন্ন ইভেন্টে অংশগ্রহনকারীদের মাঝে শুভেচ্ছা উপহার দেওয়া হয়।

এছাড়াও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা,নারীদের অংশগ্রহনে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক আলোচনাসভা ও ক্রিড়া প্রতিযোগিতা, বিকেলে প্রদর্শনী ফুটবল ম্যাচ, রাতে আতশবাজি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের  আয়োজন করা হয়েছে।

নেত্রকোনা:

যথাযোগ্য মর্যাদায় নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পালিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে সকালে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিনের সূচনা করা হয়।

শনিবার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গেই পৌর শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শহীদদের প্রতি  শ্রদ্ধা নিবেদন করে  উপজেলা প্রশাসন । এরপর একে একে বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

সকাল ১০ টায় সুসং সরকারী মাঠে উপজেলার সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ফুলের শুভেচ্ছা দিয়ে বরন করা হয়। এরপর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে কুচকাওয়াজ, শরীরচর্চা প্রদর্শন অনুষ্ঠিত হয়। 

এ সময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জান্নাতুল ফেরদৌস আরা ঝুমা তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোহাম্মদ রাজীব উল আহসান, সুসং সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আরিফুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শফিক, দুর্গাপুর সার্কেলের এএসপি মাহমুদা শারমীন নেলী, থানা ওসি মীর মাহাবুবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলা উদ্দিন আল আজাদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সোহরার হোসেন তালুকদারসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

নেত্রকোনায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে নেত্রকোনা জেলা শহরের সাতপাই স্মৃতি স্তম্ভে সকাল সাড়ে ৬টায় ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এর আগে থেকেই বিভিন্ন স্থান থেকে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে স্বাধীনতা স্তম্ভ এ হাজার হাজার মানুষ পুষ্পার্ঘ অর্পণ করতে উপস্থিত হয়।

এতে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর মোনাজাত করা হয়।

শ্রদ্ধা নিবেদন পর্বে নেত্রকোনা বারহাট্টা ২ আসনের সংসদ সদস্য সমাজ কল্যান প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।

গোপালগঞ্জ:

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। 

স্বাধীনতা দিবসের প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে প্রথমে জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা ও পরে পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা শ্রদ্ধা জানান।

এরপর গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদ, জেলা ও উপজেলা আ.লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, ‌টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন, টুঙ্গিপাড়া থানা, গোপালগঞ্জ ও টুঙ্গিপাড়া পৌরসভাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও দপ্তর এবং সর্বস্তরের মানুষ বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শ্রদ্ধা জানায়।

পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদ সদস্য এবং শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও সাফল্য কামনা করা হয়।এসময় গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগের সভাপতি চৌধুরী এমদাদুল হক সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম হেদায়েতুল ইসলাম, পৌর মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, ‌জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এমদাদুল হক বিশ্বাসসহ আ.লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এরপর সকাল আটটায় জেলা শহরের সৃতিস্তম্ভে জেলা প্রশাসক সহ সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানাই এরপর শেখ কামাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে শারীরিক চর্চা ও কুচকাওয়াজ এর  আয়োজন করে জেলা প্রশাসন এসময় জেলার সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন

এরপর জেলার বদ্ধভূমিতে শ্রদ্ধা জানায় জেলা প্রশাসন ওবিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ ও জেলার সমস্ত মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ

এরপর জেলা পরিষদের আয়োজনে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ও জেলা প্রশাসনের বাস্তবায়নে 50 জন মুক্তিযোদ্ধা কে সংবর্ধনা দেওয়া হয় এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ লুৎফর রহমান বাচ্চু জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ রুহুল আমিন ও উপজেলা নির্বাহি অফিসার রাশেদুর রহমান।

এছাড়াও জেলার বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস

ঝালকাঠি:

ঝালকাঠিতে যথাযোগ্য মর্যাদা এবং ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হচ্ছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। এ উপলক্ষে সকালে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ এর মধ্য দিয়ে বীর শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের মানুষ।

পরে সকাল ৮ টায় স্থানীয় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ করেন জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী ও পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন। এসময় পুলিশ, আনসার ও ভিডিপি, জেল পুলিশ, গার্লস ইন স্কাউটস সদস্যরা কুচকাওয়াজে অংশ গ্রহণ করেন।

এছাড়া দিনব্যাপী যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি উৎযাপনের লক্ষে জেলা প্রশাসন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

কুড়িগ্রাম:

কুড়িগ্রামে বর্ণাঢ্য কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে কুড়িগ্রাম স্টেডিয়ামে প্যারেড গ্রাউন্ডে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, স্বাধীনতার শ্বেত পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে কুচকাওয়াজ ও ডিস-প্লে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক রোজাউল করিম ও পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নত আরা।

কুজকাওয়াজে অংশগ্রহণ করেন জেলা পুলিশ, বিজিবি, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স, বিএনসিসি, রোভার স্কাউট, সিতোরিউ কারাতে দো ও জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা মহান স্বাধীনতা দিবসের উপর নানা রকম শাররীক কসরত ও  ডিস-প্লে প্রদর্শন করেন।

লালমনিরহাট:

জাতির গৌরবোজ্জ্বল এ দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসন কর্তৃক বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০২২ উদযাপন কর্মসূচীর মধ্যে ছিল প্রত্যুষে লালমনিরহাট মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির শুভ সূচনা হয়।

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকাল ৬টা ১মিনিটে লালমনিরহাট মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ, শহীদ মুক্তিযোদ্ধার নাম ফলক, রেলওয়ে গণকবরে শহীদদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক আবু জাফর, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক রফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তৌহিদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) টি. এম. এ মমিন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. মতিয়ার রহমান, পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আতিকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) মারুফা জামাল, লালমনিরহাট পৌরসভার মেয়র রেজাউল করিম স্বপনসহ আরও অনেকে।

মেহেরপুর:

মেহেরপুরে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়েছে। আজ শনিবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে মেহেরপুর সার্কেট হাউজ চত্বরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা করা হয়। সকাল সাড়ে ৬ টার সময় শহরের কলেজ মোড়ে অবস্থিত শহীদ সৃতিসৌধে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জেলা প্রশাসক ড. মুনসুর আলম খান, পুলিশ সুপার রাফিউল আলম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম রসুল, পৌর মেয়র মাহাফুজুর রহমান রিটনসহ সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তারা ও বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। পুষ্পমাল্য অর্পণ  শেষে মেহেরপুর স্টেডিয়াম মাঠে বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের কুচকায়াজ অনুষ্ঠিত হয়।

ঝিনাইদহ:

যথাযোগ্য মর্যাদায় মহেশপুরে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে সকালে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে মহেশপুর সরকারী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের লেখার মাঠে ৩১ বার তোপধ্বনি মাধ্যমে দিনটি শুরু হয়। এরপর মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিফলকে পুস্পার্ঘ্য অর্পন করেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নয়ন কুমার রাজবংশী, উপজেলা চেয়ারম্যান মইজদ্দিন হামিদ, মহেশপুর থানা অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে সকাল ৮টায় মহেশপুর সরকারী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের লেখার মাঠে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন শেষে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে কুচকাওয়াজ ও শারীরিক কসরত প্রদর্শন বরা হয়। এছাড়া দিনভর বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

মৌলভীবাজার:

২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে কুলাউড়া স্মৃতিসৌধে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছেন মৌলভীবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য স্বরাষ্ট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, ডাকসুর সাবেক ভিপি, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জাতীয় নেতা সুলতান মুহাম্মদ মনসুর আহমদ এমপি।

শনিবার (২৬ মার্চ) সকাল ৫ টা ৫১মিনিটে স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন তিনি। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করেন।

প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে একে একে আরও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সহযোগী সংগঠন, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ছাত্র, যুব, শ্রমিক, কৃষক সংগঠনের নেতা-কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ। ফুলে ফুলে ছেয়ে যায় শহীদ মিনারের বেদি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম সফি আহমদ সলমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম ফরহাদ চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) স্বজল মোল্লা, কুলাউড়া সার্কেল গোলাম কাওসার দস্তগির,অফিসার ইনর্চাজ বিনয় ভূষণ রায়, উপজেলা স্বাস্থ্য অফিসার ডাঃ ফেরদৌস, আরএমও ডাঃ জাকির হোসেন, এমপির অফিস সমন্বয়ক খাইরুল আলম কয়ছর, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সাইফুর রহমান ছয়ফুর, হোসেন মনসুর, ব্যবসায়ী সমিতির সহ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম জাহেদ, এমপির বিশেষ সহকারী জামিল আহমেদ মোহন, অফিস সহকারী শেখ রুহেল আহমদ প্রমুখ।

ময়মনসিংহ:

ময়মনসিংহে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্যাপিত হয়েছে। দিনটি পালন উপলক্ষ্যে ময়মনসিংহের কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধে ফুলে ফুলে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রশাসনসহ সর্বস্তরের মানুষ।

শনিবার (২৬ মার্চ) সকাল ৬টা ১ মিনিটে নগরীর পাট গুদাম কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

প্রথমে বীর শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বিভাগীয় কমিশনার শফিকুর রেজা বিশ্বাস। পরে ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ ডিআইজি শাহ আবিদ হোসেন, সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসিফ হোসেন ডন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামূল হক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামানসহ প্রশাসনিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ মানুষ শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

এদিকে, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে প্রশাসনের উদ্যোগে দিনব্যাপী আলোচনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেওয়া হবে বলে জানায় সংশ্লিষ্ট সূত্র।

অপরদিকে নানা কর্মসুচীর মধ্য দিয়ে ২৫ মার্চ শুক্রবার ময়মনসিংহে গণহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে শুক্রবার সকালে নগরীর থানার ঘাট ডাকবাংলা সংলগ্ন বধ্যভূমিতে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিভাগীয় কমিশনার শফিবুর রেজা বিশ্বাস।

নরসিংদী:

নরসিংদীতে যথাযথ মর্যাদায় পালিত হচ্ছে ৫১ তম মহান স্বাধীনতা দিবস। প্রত্যুষে মোসলেহ উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়ামে তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়।

সকালে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন। সকাল ৮টায়  মুসলেহ উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসক কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং প্যারেড ও কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করা হয়।

এছাড়া জেলার সকল উপজেলায় দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে মহান স্বধীনতা দিবসটি পালন করা হবে।

পাঁচবিবি:

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচীর  মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার সূর্বণজয়ন্তীতে ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতার স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্যাপন করা হচ্ছে।

শনিবার সকাল ৮টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে কর্মসূচীর শুভ সুচনা করেন জয়পুরহাট-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট সামছুল আলম দুদু এমপি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরমান হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল শহীদ মুন্না, পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন মন্ডল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু বক্কর ছিদ্দিক মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক ও ৭নং কুসুম্বা ইউপি চেয়ারম্যান জিহাদ মন্ডল, থানার অফিসার ইনচাজ পলাশ চন্দ্র দেব, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কায়সার আলী, মিছির উদ্দিন মন্ডল প্রমুখ।

এর আগে পাঁচবিবি পৌর পার্কে অবস্থিত কেন্দ্রীয় স্মৃতি সৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।

পরে স্টেডিয়াম মাঠে পুলিশ, আনছার বাহিনীসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কুচকাওয়াজ, আলোচনা সভা, পুরুস্কার বিতরণ ও মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী মুক্তিযোদ্ধাদের প্রদান করা হয়।

নওগাঁ:

নওগাঁর পত্নীতলায় যথাযথ মর্যাদায় স্বাধীনতা ও জাতীয়  দিবস ২০২২ পালিত হয়েছে। পত্নীতলা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার  ভোর ৬টা ১মিনিটে  তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের শুভ সুচনা করা হয়।

সকাল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে উপজেলা প্রশাসন, বীর মুক্তিযুদ্ধা,  উপজেলা আওয়ামী লীগ, পত্নীতলা থানা, নজিপুর পৌরসভা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্স, উপজেলা যুবলীগ, ছাত্র লীগ, পত্নীতলা উপজেলা প্রেসক্লাব সহ সরকারি আধা-সরকারি ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠন ও স্থানীয় ক্লবের কর্মকর্তারা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।

সকাল ৯ টার সময় পত্নীতলা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. লিটন সরকারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল গাফ্ফার ।

পটুয়াখালী:

পটুয়াখালীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। ২৬ মার্চ  প্রত্যুষে ডিসি স্কোয়ারে ৩১ বার তোপধ্বনি ও স্মৃতিসৌধে ও বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালনের শুভ সূচনা হয়। 

ভোর ৬ টায় স্মৃতিসৌধ ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বঙ্গবন্ধু ও সকল বীর শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, জাতীয় সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান মোহন,  পুলিশ সুপার মো. শহীদুল্লাহ পিপিএম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী আলমগীরসহ আরও অনেকে।

রাজশাহী:

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস যথাযথ মর্যাদায় উদযাপন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শনিবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নগরভবনের সামনে প্রধান ফটক চত্বর ও সকল ওয়ার্ড কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

সকাল ১০টায় নগর ভবনের সামনে থেকে আনন্দ র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ভূবনমোহন পার্ক শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়। এরপর ভূবনমোহন পার্ক শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

প্রথমে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে কাউন্সিলরবৃন্দ পুস্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপরে কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ ও কর্মচারী ইউনিয়নের পক্ষ থেকে পুস্পস্তকক অর্পণ করা হয়। এরআগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শনিবার সকালে শহীদ মজনু পার্কে বিজয়স্তম্ভে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন সোনারগাঁ উপজেলা প্রশাসন, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগ, জাতীয়পার্টি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ সর্বস্তরের জনগণ। শ্রদ্ধা জানান নারায়ণগঞ্জ ৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সামসুল ইসলাম ভুঁইয়া, যুগ্ম আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, আহবায়ক কমিটির সদস্য ডা. আবু জাফর চৌধুরী বিরু, লায়ন মাহাবুর রহমান বাবুল, মোহাম্মদ হোসাইন, সোনারগাঁ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সোহেল রানা, ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গনি প্রমুখ।

টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইলে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হচ্ছে।  শুক্রবার (২৬ মার্চ) সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বার তোপধ্বনি ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর জেলা পুলিশ, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাব, জেলা পরিষদ, সিভিল সার্জন, উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। পরে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

উল্লাপাড়া:

যথাযোগ্য মর্যাদায় ও নানা কর্মসূচির মধ্যেদিয়ে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় উদযাপিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।

শনিবার সকাল ৬ টায় পৌর শহরের থানা মোর চত্বরের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের পাদদেশে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো হয়।

প্রথমে সিরাজগঞ্জ-৪, উল্লাপাড়া আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের মধ্যদিয়ে শহীদের শ্রদ্ধা জানিয়ে সকল অনুষ্ঠানের শুভ সুচনা করেন। এ সময় তার সহধর্মীনি মাহিন ইমাম উপস্থিত ছিলেন। পরে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা আওয়ামী লীগ, উল্লাপাড়া প্রেসক্লাবসহ পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দু শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে পুষ্পস্তবক প্রদান করেন।

চৌহালী:

মহান স্বাধীনতা দিবস ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে নানা অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হচ্ছে চৌহালী উপজেলায়। এ উপলক্ষে সকালে শহীদ মিনারে  ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এছাড়া ও প্রশাসনের উদ্যোগে বিজয় র‌্যালি বের করা হয়েছে।

এসময় উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ,পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযুদ্ধা সংসদ, প্রেসক্লাব, আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এতে অংশ নেন। ফুলেল শ্রদ্ধার আগে স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদের আত্নার শান্তি কামনায় এক মিনিট নিরবতা পালন ও বিশেষ দোয়া করা হয়।

এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক সরকার,  উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফসানা ইয়াসমিন , উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ তাজ উদ্দিন,  চৌহালী  থানা অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম , ভাইস চেয়ারম্যান মোল্লা বাবুল আক্তার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন, কৃষি কর্মকর্তা জেরিন আহমেদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মজনু মিয়া, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শামীম জাহিদ তালুকদার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আরিফ সরকার, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর ফিরোজ,  উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. গিয়াস উদ্দিন,  সহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারি বৃন্ধ। পরে চৌহালী সরকারি কলেজ মাঠে  কুচকাওয়াজ ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

বান্দরবান:

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় বান্দরবানে পালিত হয়েছে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।

২৬ মার্চ শনিবার সকালে বান্দরবান জেলা ষ্টেডিয়ামে আকাশের বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে দিবসটি শুভ উদ্বোধন করেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি।

সভার শুরুতেই সূর্যোদয়ের সাথে সাথে বীর শহীদদের স্বরণে শহীদ মিনারে উপজেলা পরিষদ,উপজেলা প্রশাসন,উপজেলা বীর মুক্তিযোদ্ধা,আওয়ামীলীগ অঙ্গসংগঠন,সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান,বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অনান্য সংগঠন এর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে ও শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.