× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

ভারতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত

প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রধান বিপিন রাওয়াতসহ ১৩ জন নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:২৩ পিএম । আপডেটঃ ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪৭ পিএম

ভারতের তামিলনাড়ুর কুন্নুরের নিলগিরি জেলার পাহাড়ি জঙ্গলে ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রধান (চিফ অব ডিফেন্স ষ্টাফ) জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতসহ ১৩ জন হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে মারা গেছেন। বুধবার বেলা ১২টা ৪০ মিনিটে তামিনাড়ুর নিলগিরি জেলার পাহাড়ি অরণ্যে হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হলে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে। 

রাশিয়ার নির্মিত এমআই-১৭ভি৫ চপার হেলিকপ্টারটিতে প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রীসহ মোট ১৪ জন যাত্রী ছিলেন। তামিলনাড়ুর ওয়েলিংটন বেস হাসপাতালে নেয়ার প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান ও তার স্ত্রী মারা যান। বেঁচে থাকা একমাত্র কপ্টার আরোহী ক্যাপ্টেন বরুন সিং-এর অবস্থা আশঙ্কাজনক। জেনারেল বিপিন রাওয়াতের শরীরের ৮৫ ভাগ পুড়ে যায়। ছয় সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করেও শেষ রক্ষা হয়নি।

কোলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, কপ্টারটিতে থাকা ১৪ যাত্রীর মধ্যে ১৩ জন মারা গেছে। তামিলনাড়ুর নিলগিরি জেলার কালেক্টর ১৩ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। গভীর জঙ্গলে বিধস্ত হওয়ার পরপরই হেলিকপ্টারটিতে আগুন ধরে যায়। নিলগিরি জেলার জঙ্গলটি তামিলনাড়ু-কর্ণাটক সীমানায় দূর্গম পাহাড়ি এলাকায় অবস্থিত। কৃষ্ণস্বামী নামে কুন্নুরের এক বাসিন্দা জানিয়েছেন, প্রথমেই তিনি একটি বিকট আওয়াজ শোনেন তিনি। আওয়াজে চমকে উঠে ঘর থেকে বেরোতেই তাঁর চোখে পড়ে একটি হেলিকপ্টার ধাক্কা মারল একটি গাছে। ধাক্কার অভিঘাতে মুহূর্তে আগুন জ্বলে যায় হেলিকপ্টারে। আগুনের গোলার মতো তা ধাক্কা মারে আরও একটি গাছে। কৃষ্ণস্বামীর দাবি, এই ঘটনা দেখে তাঁরা হেলিকপ্টারের দিকে ছোটেন। যখন সেখানে পৌঁছন, দেখতে পান কয়েকজন দুর্ঘটনাগ্রস্ত হেলিকপ্টারটি থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছেন। তাঁদের দেহের সিংহভাগই অগ্নিদগ্ধ। এ ঘটনায় ভারতীয় বিমানবাহিনী একটি উচ্চ ক্ষমতা সমপন্ন তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তারা ইতোমধ্যেই দুর্ঘটনার ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে বলে জানিয়েছে ভারতের বিমানবাহিনী। 

অন্যদিকে ভারতের এনডিটিভি’র খবরে বলা হয়েছে, হেলিকপ্টারটিতে প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতসহ মোট ১৪ জন যাত্রী ছিলেন। এছাড়াও ছিলেন, ব্রিগেডিয়ার এল এস লিড্ডর, লেফটেন্যান্ট কর্নেল হরজিন্দর সিংহ, এনকে গুরুসেবক সিং, ক্যাপেন্টন বরুন সিং, এনকে জিতেন্দ্র কুমার, ল্যান্সনায়েক বিবেক কুমার, ল্যান্সনায়েক বি সাই তেজা, হাবিলদার সৎপাল ও আরও কয়েকজন সেনাকর্মী। এরা প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান সহকারী, কমান্ডো ও বিমান বাহিনীর সদস্য। তবে এখনও পর্যন্ত ১৪ জন যাত্রী পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। 

গন্ধ্য ৬টা নাগাদ ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতসহ ১৩ জনের মৃত্যুর খবর প্রকাশ করে। মৃতদের পরিচয় নিশ্চিত করতে সকলের ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। রাশিয়ার নির্মিত এমআই-১৭ভি৫ চপার প্রথমে ৫ জনের মৃতদেহ হেলিকপ্টার থেকে বের করা হয়। বাকিদের দেহ উদ্ধার হয় পরে। এনিডিটিভি ডটকম আরও জানায়, গতকাল বুধবার সকালে বিমানযোগে দিল্লী থেকে তামিলনাড়ুর কম্বিটোরের সুলুরে যান। তখন জেনারেলের সফরসঙ্গী ছিলেন ৫ জন। সেখান থেকে আরও ৯ জন সফরসঙ্গী হন। দক্ষিণ ভারতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর অন্যতম বড় ঘাঁটি হল কম্বিটোর। সেখানেই রয়েছে সুলুর এয়ারফোর্সের স্টেশন। এদিন সকালে বিমানে সেখানেই যান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। তারা কপ্টারে রওনা হন ওয়েলিংটনে থাকা ডিফেন্স সার্ভিসেস স্টাফ কলেজের উদ্দেশে। প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, প্রায় ২০ মিনিটের রাস্তায় মিনিট দশের পরেই হেলিকপ্টারটি প্রায় ছয় হাজার ফুট উচ্চতায় থাকার সময়ে ভেঙে পড়ে। পাহাড়ের ওপরে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে তাতে আগুন ধরে যায় বলে স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে। দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পরেই তামিলনাড়ু সরকারের তরফে ছয় সদস্যের মেডিকেল টিম পাঠানো হয় দুর্ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে। সেনাবাহিনীর তরফে ১২ জন সদস্যসহ ছটি অ্যাম্বুলেন্স টিম উপস্থিত হয় ঘটনাস্থলে। তবে যাদেরকে হাসপাতালে পাঠানো হয়, তাঁদের শারীরিক অবস্থা সংকটজনক পর্যায়ে ছিলো বলে ভারতীয় অনলাইন পোর্টাল ওয়ান ইন্ডিয়া তাদের প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে। তবে সেনাবাহিনীর তরফে বিস্তারিত কিছুই জানানো হয়নি।

ওয়েলিংটনের ডিফেন্স সার্ভিসেস স্টাফ কলেজে ভারতীয় সেনা আধিকারিকদের সঙ্গে বন্ধু দেশের সেনা আধিকারিকরা ট্রেনিং নেন। আবার সেখানে ট্রেনিং দেওয়ার জন্য দেশের শীর্ষ সেনা আধিকারিকরা ছাড়াও অন্য দেশ থেকেও সেনা আধিকারিকরা আসেন। তামিলনাড়ুর কম্বিটোরে অবস্থিত ডিফেন্স স্টাফ কলেজে সময় অতিবাহিত করে তিনি হেলিকপ্টারে রওয়ানা হন। চপার হেলিকপ্টারটি বিধস্ত হওয়ার পর পরই গ্রামবাসী স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করেন। এরপরই উদ্ধারকারী টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে। 

এই দুর্ঘটনার পর ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং বিপিন রাওয়াতের বাড়িতে যান। দূর্ঘটনার খবরটি ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। 

উল্লেখ্য, সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াতের বয়স ৬৩ বছর। ২০১৯ সালে তিনি ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ নিযুক্ত হন। আজ বৃহস্পতিবার হেলিকপ্টার দূর্ঘটনার বিষয়ে পার্লামেন্টে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং ব্যাখা দিবেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে।

Sangbad Sarabela

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: জান্নাতুল ফেরদৌস

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.