× প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিশ্ব রাজনীতি খেলা বিনোদন বাণিজ্য লাইফ স্টাইল ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

ইরানে স্মরণসভায় বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ১০৩, কঠোর হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৪ জানুয়ারি ২০২৪, ১২:৫৫ পিএম

ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) শীর্ষ কমান্ডার কাসেম সোলাইমানির চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় জোড়া বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০৩ জনে দাঁড়িয়েছে।

দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর কেরমানে বুধবারের এ ঘটনায় আরও অন্তত ১৪১ জন আহত হয়েছেন। এখানে সোলাইমানির সমাধিস্থলের কাছে ওই স্মরণসভার আয়োজন করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এই খবর জানিয়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, সোলাইমানির মৃত্যুর চতুর্থ-বার্ষিকী উপলক্ষে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর কেরমানে তার কবরস্থানের কাছে একটি স্মরণসভা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠান চলাকালীন ২০ মিনিট পর প্রথম এবং তারপরেই দ্বিতীয় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কেরমানের জরুরি পরিষেবা বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ সাবেরি।

এক বিবৃতিতে সাবেরি বলেন, ‘বোমা হামলায় ঘটনাস্থলেই ৭৩ জন নিহত হন। আর বোমায় গুরুতর আহতদের অধিকাংশই হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান। বর্তমানে হাসপাতালের বেডে শুয়ে কাতরাচ্ছেন আরও ১৪১ জন। তাদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর।’

যেভাবে হামলা

ইরানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ইরনা জানায়, প্রথম বোমাটি বিস্ফোরিত হয় সোলাইমানির সমাধিস্থলের ৭০০ মিটার দূরে। একটি পুজো কারের ভেতর স্যুটকেসের মধ্যে রাখা ছিল বোমাটি। রিমোট কন্ট্রোলারের সাহায্যে সেটির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

রাষ্ট্রীয় সংবাদ চ্যানেল আইআরআইবিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ওয়াহিদি বলেন, ‘প্রথম বিস্ফোরণটি ঘটে স্থানীয় সময় বুধবার বিকেল ৩টার দিকে। বিস্ফোরণে আহতদের উদ্ধার করতে যখন সভায় উপস্থিতরা ঘটনাস্থলে জড়ো হন, তখন অর্থাৎ ২০ মিনিট পর দ্বিতীয় বিস্ফোরণটি ঘটানো হয়। এটির প্রভাব ছিল ধ্বংসাত্মক।’

এখন পর্যন্ত নৃশংস এই বোমা হামলার দায় স্বীকার করেনি কোনো পক্ষ বা সংগঠন। বোমা বিস্ফোরণে হতাহত হওয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে ইরান।

হুঁশিয়ারি

ঘটনার পর ইরানের বিচার বিভাগের প্রধান গোলাম হোসেন মোহসেনি-ইজেই বিবৃতি দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এই নৃশংস ঘটনার হোতা ও বাস্তবায়নকারীদের খুঁজে বের করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।’

সব তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে অপরাধীদের শনাক্ত করে তাদের ধরে আইনের হাতে তুলে দিতে ইরানের গোয়েন্দা বিভাগ, নিরাপত্তা বিভাগ ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোকে অবিলম্বে কাজ শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

হুতির বিবৃতি

জেনারেল সোলাইমানির শাহাদাৎ বার্ষিকীতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিন্দা এবং ইরানের প্রতি সংহতি জানিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতি।

বিবৃতিতে তারা বলেছে, ‘ইসলামী প্রজাতন্ত্রকে দুর্বল করার মতো চেষ্টার সমস্ত অপরাধের সম্প্রসারণকে প্রতিনিধিত্ব করে এ হামলা। এ ঘটনার পর ইসলামী প্রজাতন্ত্রের বিরুদ্ধে বৈশ্বিক ঔদ্ধাত্যের মোকাবিলায় ইরানের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করছে হুতি।’

দায় স্বীকার নেই

এদিকে এর পেছনে কে বা কারা দায়ী তা বিস্তারিত জানা যায়নি। তাৎক্ষণিকভাবে এ হামলার দায় স্বীকার করেনি কোনও গোষ্ঠী। এই হামলাকে একটি ‘সন্ত্রাসী হামলা’ বলে অভিহিত করেছেন ইরানি কর্মকর্তারা। 

আইআরজিসি শীর্ষ কমান্ডার কাসেম সোলাইমানি ২০২০ সালের জানুয়ারিতে ইরাকে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হন।

Sangbad Sarabela

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । [email protected], বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2024 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.