× প্রচ্ছদ জাতীয় সারাদেশ রাজনীতি বিশ্ব খেলা আজকের বিশেষ বাণিজ্য বিনোদন ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

কাবুলে আফগান নারীদের বিক্ষোভ

৩০ মে ২০২২, ১০:১৬ এএম

‘শিক্ষা, কাজ, স্বাধীনতা’— তিন দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন আফগান নারীরা। রোববার আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে প্রায় ৩০ জন নারী বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এএফপি।

এএফপির প্রতিবেদনে বরা হয়, কাবুলের একটি ব্যস্ত সড়কে হাতে লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন ওই নারীরা। এ সময় তারা মেয়ে স্কুলগুলো খুলে দেওয়া, কর্মসংস্থানের প্রতিবন্ধকতা ও মেয়েদের প্রতি দমনমূলক যাবতীয় নীতি প্রত্যাহারের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকেন।

কয়েকশ মিটার এগোনোর পরই সাদা পোষাকের তালেবান রক্ষীদের বাধার কারণে কয়েকশ মিটার এগোনোর পরই সেই মিছিল থামাতে বাধ্য করেন নারীর। তালেবান রক্ষীরা মিছিলে উপস্থিত কয়েকজন নারীর কাছ থেকে মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঝোলিয়া পার্সি নামের এক বিক্ষোভকার এ বিষয়ে এএফপিকে বলেন, ‘মিছিল শেষে আমরা আমাদের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করতে চেয়েছিলাম কিন্তু তালেবান রক্ষীদের কারণে তা সম্ভব হয়নি।’

‘তারা মিছিল থেকে কয়েকজনের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে গেছে, পাশাপাশি আমাদেরকে ছবি ও ভিডিও তুলতে বাধা দিয়েছে।’

১৯৯৬ সালে প্রথমবারের মতো আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করেছিল কট্টর ইসলামপন্থী তালেবান গোষ্ঠী; কিন্তু ২০০১ সালে টুইন টাওয়ারে হামলায় সংশ্লিষ্টতা ও আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আল কায়দা নেটওয়ার্কের তৎকালীণ প্রধান ওসামা বিন লাদেনকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগে ওই বছর দেশটিতে মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনী অভিযান শুরু করলে ক্ষমতাচ্যুত হয় তালেবান।

গত বছর মার্চে আফগানিস্তানে দুই দশকের যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ২৯ আগস্টের মধ্যে দেশটি থেকে সব মার্কিন ও ন্যাটো সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি।

জো বাইডেনের এই প্রতিশ্রুতির পরই আফগানিস্তান দখলে অভিযান শুরু করে তালেবান, এবং ১৫ আগস্ট কাবুল দখলের মাধ্যমে জাতীয় ক্ষমতা হস্তগত করে।

এর আগে ২০১৯ সালে তৎকালীণ মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে একটি চুক্তি করেছিল কট্টর ইসলামপন্থী এ গোষ্ঠী। সেখানে আফগানিস্তানে একটি অন্তবর্তী সরকারগঠন, নারীদের শিক্ষা ও কর্মসংস্থানে বাধা না দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিল গোষ্ঠীটির জ্যেষ্ঠ নেতারা।

কিন্তু ক্ষমতা দখলের পর এসব প্রতিশ্রুতি আর রক্ষা করেনি তালেবান। ক্ষমতায় আসার পর থেকেই নারী-পুরুষ একত্রে শিক্ষাগ্রহণ (কো-এডুকেশন) নিষিদ্ধ করে তালেবান প্রশাসন, পাশাপাশি বন্ধ করে দেওয়া হয় মেয়ে সেকুলগুলো।

চলতি মাসে আফগান নারীদের জন্য বোরকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তালেবানদের শীর্ষ নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা বলেছেন, তালেবান প্রশাসন নারীদের ঘরে দেখতে চায়।

Sangbad Sarabela

সম্পাদক: আবদুল মজিদ

প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । sangbadsarabela26@gmail.com

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2022 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.