× প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিশ্ব রাজনীতি খেলা বিনোদন বাণিজ্য লাইফ স্টাইল ভিডিও সকল বিভাগ
ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ

বদরগঞ্জে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে চারা রোপণ

বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি

১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:৩১ পিএম

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার মেশিনের মাধ্যমে বোরো ধানের জমিতে হাইব্রিড ধান জাতের চারা রোপণের উদ্বোধন করা হয়েছে। দেশের অর্থনীতির গতিকে তরান্বিত করতে আধুনিক কৃষিতে যান্ত্রিকরণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ধান কাটার ও রোপন করার সময় শ্রমিক সংকট দেখা দেয়। ফলে কৃষকরা ক্ষতিক সম্মুখীন হয়। এই ক্ষতি থেকে কৃষি বাচাতে আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে ধান রোপণ ও কাটার উদ্যোগ।

সোমবার (১২ জানুয়ারি)  রবি মৌসুমে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচি  আওতায় এ চারা রোপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো রুবেল রানার (অতিরিক্ত দায়িত্ব)সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ মোবাশ্বের হাসান,রংপুর খামারবাড়ি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো রিয়াজ উদ্দিন,বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  মো আব্দুল লতিফ মিঞা। 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন বদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ গোলাম মোস্তফা মো জোবাইদুর রহমান। 

প্রদশর্নীর মাধ্যমে “রাইস ট্রান্সপ্লান্টার” এর সুফল ও সুবিধা সম্পর্কে কৃষকদের অবগত করা হয়। প্লান্টার দিয়ে ধানের চারা রোপণ করে এর সুফল সম্পর্কে কৃষকদের অবগত করে তাদেরকে যন্ত্রটি ব্যবহারে উৎসাহী করা হচ্ছে। কৃষকরাও আগ্রহভরে যন্ত্রটির ভালোমন্দ পর্যবেক্ষণ করছেন। তারা এ যন্ত্রটি ব্যবহারে আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

রাইস ট্রান্সপ্লান্টার”-এর একাধিক চালক বলেন, এই মেশিং নিয়ে ৫০ ডিসিমাল ধানের চারা রোপণ করতে সময় লাগে প্রায় ১ ঘণ্টা। আর এতে প্রতি ডিসিমালে তেল খরচ হয় ১০ থেকে ১২ মিলিলিটিার। অল্প সময়েই মধ্যেই একটি ক্ষেত্রের ধানের চারা রোপণ করা যাবে। এতে কৃষদের ৮০ ভাগ খরচ কমে যাবে। যদি ৩৩ ডেসিমালে শ্রমিক দিয়ে ধানের চারা রোপণ করানো হয় তাহলে প্রায় ১ হাজার টাকা খরচ হবে। আর যদি রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে চারা রোপণ করা হয় তাহলে মাত্র ২০০ টাকা খরচ হবে। 

ওই এলাকার কৃষক তরুণ কান্তি রায় বলেন, আমার প্রায় ৪ একর জমিতে বোরো ধান রোপন করা হবে এই যন্ত্র ব্যবহার করে। আমি মনে করছি এই যন্ত্র একদিকে সময় বাচাবে অন্যদিকে ব্যয় ও কমাবে। উপজেলা কৃষি অফিস থেকে কৃষি  প্রণোদনারও পেয়েছি এতে আমরা অনেকটাই সাশ্রয়ী হয়েছি। 

কৃষক রামপ্রসাদ বলেন, আমি প্রায় ৩১ শতক জমিতে উপজেলা কৃষি অফিসের তদারকিতে চারা রোপন  করবো।এতে করে খরচ কম হবে এবং  লাভবান হবো আশা করছি। 

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোবাশ্বের হাসান বলেন, রংপুর কৃষি উৎপাদনে খুব ভালো অবস্থানে আছে আমাদের আমরা রংপুর এমন উৎপাদন করি যে দেশের অন্য জেলায় সরবরাহ করছি। যারা কৃষক তারা রংপুরের প্রাণ। একমাত্র কৃষিতে রংপুর সবচেয়ে এগিয়ে। এ সময় জেলা প্রশাসক যন্ত্রের মাধ্যমে রোপনকৃত ধান কেমন হয় সেটি পরবর্তীতে কৃষকের কাছে জানতে চান। 

তিনি আরো বলেন আমরা চাই এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে এক ফসলি জমি দুই ফসলিতে দুই ফসলি জমি ৩ ফসলিতে নেবেন। আমরা কৃষিতে আরো এগিয়ে যেতে চাই। 

তিনি আরো বলেন, যন্ত্র দিয়ে একসাথে ৬ লাইনে ধানের চারা রোপণ করা যায়। যন্ত্রটি একসাথে ১২টি ট্রে বহন করে চালাতে পারে। সনাতন পদ্ধতিতে এক বিঘা জমিতে ধানের চারা রোপণ করতে কমপক্ষে চার জন শ্রমিককে কাজ করতে হয়। এতে করে কৃষকদের অধিক মুজুরি গুনতে হয়। যন্ত্র দিয়ে এক ঘন্টায় ০.৩৫ হেক্টর জমির ধান রোপণ করা যায়। জ্বালানি খরচ ঘণ্টায় সাতশ’ গ্রাম। প্রতি হেক্টর জমিতে ২০ জন শ্রমিকের সাশ্রয় হয়। এ যন্ত্র দিয়ে ধানের চারা রোপণ করলে কৃষকের সময় ও অর্থের সাশ্রয় হবে। চারা রোপণে যন্ত্রটি ব্যবহার করলে রোপণ খরচ ৫০-৭৫ ভাগ কমানো সম্ভব হবে। এ ছাড়া রাইস ট্রান্সপ্লান্টার দিয়ে চারা রোপণ করলে লাইন সোজা হয়। ফলে পরবর্তীতে আগাছা নিংড়ানো, সার ও কীটনাশক ছিটানো ও ধান কাটা সহজ হয়।

Sangbad Sarabela

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও প্রকাশক: কাজী আবু জাফর

যোগাযোগ: । 01894-944220 । [email protected], বিজ্ঞাপন: 01894-944204

ঠিকানা: বার্তা ও বাণিজ্যিক যোগাযোগ : বাড়ি নম্বর-২৩৪, খাইরুন্নেসা ম্যানশন, কাঁটাবন, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা-১২০৫।

আমাদের সঙ্গে থাকুন

© 2024 Sangbad Sarabela All Rights Reserved.